1. admin@esaharanews.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন

সিন্ডিকেট শব্দটি বাংলাদেশে ৯০ দশক থেকে শুনা যায়

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১
  • ৫ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধিঃ সিন্ডিকেট শব্দটি বাংলাদেশে ৯০ দশক থেকে শুনা যায়।ধরণ ও তাদের কার্যক্রম বুঝতে অনেক সময় যায়।আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির কল্যাণে সাম্প্রতিক সময়ে সিন্ডিকেটের সদস্যবৃন্দের নাম ও গুণাগুণ সকলেই অবহিত আছেন।ব্যবসা ও রাজনৈতিক সুবিধা কুক্ষিগত করার সমমনা ও সুবিধাবাদীদের একটি অলিখিত ও অদৃশ্য ব্যবস্থাপনা।আর এই ব্যবস্থাপনা পরিচালনা করে জনপ্রতিনিধি পাওয়ার পার্টির নেতৃবৃন্দ ও সিন্ডিকেট মেম্বর মিলে।মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলাতে আছে এই সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্য। আছে তাদের আর্শীবাদ ও অভিশাপ।বিরাজভাজন রাজনৈতিক কর্মী ও সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারী এই অভিশাপ ও আর্শীবাদ পান।আর্শীবাদ পেলে মিলে যায় রাজ্য ও রাজকন্যা আর অভিশপ্ত হলে বঞ্চিত হয় টিআর,কাবিখাসহ অন্যান্য সুবিধাদী।কোন সরকারি কর্মকর্তা নেক নজর পেলে থেকে যান ২ (দুই) দশক আবার কথা না শুনা অথবা সুবিধা না দিলে থাকেন দৌড়ের উপরে; হোন বদলী(কখনো কখনো স্ট্যন্ড রিলিজ)। যেমন-ওসি তরীকুল ইসলাম।বাতাসে গুজব ডালপালা মেলছে খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা পড়ে গেছেন বিরাগভাজনের দলে।যুব উন্নয়ন, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের প্রধান অফিস সহকারী আছে নেক নজরের শীর্ষে।এই সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্যের অবসান চাই।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত উন্নত বাংলাদেশ গঠনে স্বচ্ছ ও দেশপ্রেমিক জনপ্রতিনিধি ও দুর্নীতিমুক্ত গতিশীল জনপ্রশাসনের জোর দাবী জানাই।
ঈ/নি : ইন্দ্রনীল বিশ্বাস

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

SJ