ঢাকামঙ্গলবার, ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, রাত ২:৩৪
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিয়ের একমাস পর শাশুড়ি এবং বৌয়ের মধ্য কথোপকথন হচ্ছিলো।

ESAHARA NEWS
ডিসেম্বর ২২, ২০২২ ২:৩০ অপরাহ্ণ
পঠিত: 31 বার
Link Copied!

শাশুড়ি বললেনঃ বৌমা,আমি ত্রিশ বছরে যা পারিনি তুমি ত্রিশ দিনে তা করে ফেলেছ!!!

বৌমা বললেন মা আপনি এ কি বলছেন!!!

শাশুড়ি হ্যাঁ মা,আমি ত্রিশ বছরে ছেলেকে কোন দুর্গাপূজোর নিরামিষ আহারের অভ্যস্ত করতে পারিনি। তুমি ত্রিশ দিনেই পেরেছ!!!

বৌমা বললেন মা আপনি কি পাথর আর স্বর্ণের গল্পটা জানেন ?

শাশুড়ী বললেন না তো মা!!

বৌমা বললেন,তবে শুনুন কোন এক গ্রামে চলাচলের পথে একটি বড় পাথর প্রতিবন্ধক হয়ে দাঁড়াল। এক ব্যক্তি রাস্তা পরিস্কার করতে মনস্থ করল। সে একটি কুড়াল নিয়ে পাথরটি ভাঙার চেষ্টা করল। ৯৯টি আঘাত করে সে ক্লান্ত হয়ে গেল। তখনই সেখান দিয়ে এক পথিক যাচ্ছিল। লোকটি পথিকের সাহায্য চাইলো। পথিক কুড়াল নিয়ে আঘাত করতেই পাথরটি ভেঙে গেল এবং ভেতর থেকে স্বর্ণভর্তি একটি থলে বেরিয়ে এল।পথিক বললো যেহেতু পাথরটি আমার আঘাতে ভেঙ্গেছে তাই থলেটি আমার।

কুঠার মালিক বললো,আমাকেও কিছু দাও। আমিও যে ৯৯টি আঘাত করলাম। পথিক দিতে রাজি হল না। দুজনেই মিলে এক মন্দিরের সাধুর কাছে গেল। সব শোনে বিচক্ষণ সাধু মীমাংসা করলেন। স্বর্ণগুলোকে ১০০ভাগ করে ১ভাগ দিলেন পথিককে বাকি ৯৯ভাগ লোকটিকে দিয়ে দিলেন। তখন সাধু বললেন,যদি তোমার ৯৯টি আঘাত না হত তাহলে এই পাথরটি ভাঙতোই না।

তখন বৌমা বলল,মা আপনি ত্রিশ বছর পরিশ্রম করে সবকিছু প্রস্তুত করেছেন। আমি শুধু শেষ আঘাতটাই করেছি। মা আপনি আশীর্বাদ করবেন আপনার ছেলেকে নিয়ে যেন পরমেশ্বর ভগবানের প্রসাদ সর্বদা পেতে পারি । শাশুড়ী আরও খুশী হয়ে বললো,পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কৃপায় যেন তোমাদের ঘরে পরম বৈষ্ণব জন্মগ্রহণ করেন।

★★★ হরেকৃষ্ণ★★★