ঢাকামঙ্গলবার, ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৩:২৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শালিখায় এক কিশোরকে পায়ে পেরেক ফুটিয়ে অমানবিক নির্যাতন।

ESAHARA NEWS
জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ ১:২৪ অপরাহ্ণ
পঠিত: 47 বার
Link Copied!

শালিখা মাগুরা প্রতিনিধিঃ শালিখা উপজেলার ছান্দড়া গ্রামের সজিব(১৩) নামের এক কিশোরকে চুরির অপবাদে পায়ে পেরেক ফুটিয়ে শারিরীক ভাবে অমানবিক নির্যাতন করেছে স্থানীয় এক পোল্ট্রি ও মুদি ব্যবসায়ী হাসান আলী।সজিব এখন মুমূর্ষ অবস্থায় শালিখা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।আহত সজিবের পিতা কোহিনুর মোল্লা আসামিপক্ষের সাথে লিয়াযো করে মামলা নাদিলেও শালিখা পুলিশ প্রশাসন ১৫১ ধারায় হাসান আলীকে আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।জানাযায় গত কাল শুক্রবার জুমার নামাজের পর ছান্দড়া গ্রামের চৌরাস্তার জাফর আলীর পুত্র পোল্ট্রি ও মুদি ব্যবসায়ী হাসান আলী দোকানে যাইয়া দেখতে পায় গ্রামের কোহিনূরের পুত্র কিশোর সজীব হোসেন তার দোকানের ভিতর।এ সময় হাসান চুরির অপবাদ দিয়ে সজিব কে বেদম মারপিট করে।এ সময় সজিবের হাটু পা সহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় রক্তাক্ত জখম হয়।পরে তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় শালিখা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সজীবের পিতা কহিনুর মোল্লা বলেন আমার ছেলেকে মারপিটের ঘটনা সত্য।তবে পায়ে পেরেক ফুটায়নি।সে পড়ে যায়ে আহত হয়েছে।হাসন আলী আমার মামাত ভাই তার বিরুদ্ধে মামলা করবো না।অনেকে বলেছেন মোটা অংকের টাকা পেয়ে কোহিনুর মামলা থেকে বিরত রয়েছে। শালিখা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বিশারুল ইসলাম বলেন আহত সজিবের পিতা বাদী হয়ে মামলা না দেয়ায় আমরা হাসান আলীকে ১৫১ ধারায় গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছি।